গাইবান্ধায় রেললাইন পানির নিচে তলিয়ে যাওয়ায় ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

জেলা প্রতিনিধি গাইবান্ধা :

বুধবার বেলা ১১টা থেকে সদর উপজেলার বাদিয়াখালি-ত্রিমোহনী রুটে বাদিয়াখালিতে বন্যার পানির চাপে রেললাইন লাইনের নিচের মাটি সরে যাওয়ায় রেল যোগাযোগ বন্ধ আছে।

গাইবান্ধা স্টেশন মাস্টার আবুল কাসেম বলেন, রংপুর-লালমনিরহাট-ঢাকা রেলরুটের গাইবান্ধা সদরের বাদিয়াখালি থেকে ত্রিমোহনী লাইনের ওপর দিয়ে বন্যার পানি প্রবাহিত হয়। এর ফলে আসতে আসতে বাদিয়াখালিতে অনেক অংশের রেললাইন লাইনের নিচের মাটি সড়ে যায়।

লাইনের নিচের মাটি সড়ে যাওয়ার আগে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা লালমনি এক্সপ্রেস আন্ত:গর ট্রেনটি ধীরগতিতে বিলম্বে হলেও বাদিয়াখালি থেকে ত্রিমোহনী অতিক্রম করে গাইবান্ধা স্টেশনে পৌঁছেছে। লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনটি আসার পর পদ্মরাগ ট্রেন আসার চেষ্টা করলে লাইনের অবস্থা ভালো না থাকায় ওখানেই থেমে থাকে। বোনারপাড়া থেকে বগুড়া ও গাইবান্ধা থেকে লালমনির হাট, রংপুর পর্যন্ত ট্রেন যোগাযোগ সচল আছে।

পরে পশ্চিম অঞ্চলের সিদ্ধান্তে রুট পরিবর্তন করে ঢাকা গামী আন্ত:নগর লালমনি ও রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি কাউনিয়া হয়ে রংপুর দিয়ে পার্বতীপুর হয়ে ঘুরে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করে। এতে করে বামনডাঙ্গা-গাইবান্ধা-বগুড়া রুটের যাত্রীরা গন্তব্যে যেতে পারেনি। এছাড়াও একই কারণে লালমনিরহাট রেলওয়ে বিভাগের প্রায় পাঁচটি ট্রেন বিভিন্ন স্টেশনে আটকা পড়ে। বন্যার পানি নেমে গেলে বাদিয়াখালি থেকে ত্রিমোহনী রুট মেরামত না করা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকবে বলে জানান তিনি।

মন্তব্য

মন্তব্য