পুলিশের বাড়তি সতর্কতার মধ্যেই লন্ডনে মুসলমানদের ওপর হামলা, আহত ১ যুবক

অনলাইন ডেস্ক:নিউজিল্যান্ডে গণহত্যার পর বিশ্বের সব দেশেই বাড়তি সতর্কতা গ্রহণ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনী। মুসলমানদের আবাসস্থল, বিশেষ করে মসজিদগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। এরই মধ্যে পূর্ব লন্ডনের হোয়াইটচ্যাপেলে ক্যানন স্ট্রিট রোডে মসজিদের সামনেই তিন শ্বেতাঙ্গ দুর্বৃত্তের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন এক মুসলিম নাগরিক।  দ্য সানইন্ডিপেন্ডেন্ট

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, দুর্বৃত্তরা একটি নীল গাড়িতে চড়ে মসজিদের সামনে দিয়ে যাবার সময় ইসলামবিদ্বেষী কটূক্তি করতে থাকে। এসময় তারা জুমার নামাজ পড়তে যাওয়া মানুষদের সন্ত্রাসী বলে গালাগাল করে। মুসুল্লীরা গাড়িটির পিছে ধাওয়া করলে দুর্বৃত্তদের একজন গাড়ি থেকে বের হয়ে হাতুড়ি দিয়ে একজনের মাথায় আঘাত করে। ২৭ বছরের যুবকটির আঘাত তেমন গুরুতর নয় বলে পুলিশ জানিয়েছে। দু’পক্ষের মধ্যে কিছুক্ষণ হাতাহাতি হয়, তারপর পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।মেট্রোপলিটন পুলিশের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, দুর্বৃত্তদের সন্ধানে নেমেছেন তারা। প্রাথমিকভাবে তাদের ব্যবহৃত গাড়িটি খোঁজা হচ্ছে।আহত যুবককে হাসপাতালে নিয়ে যায় তার বন্ধুরা। সেখানকার স্টাফদের সাথে বেশ রাগারাগি করেন তিনি, চিকিৎসা না নিয়েই হাসপাতাল থেকে চলে যান।পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগের শীর্ষকর্তা নেইল বাসু জানান, জুমার দিন উপলক্ষে বাড়তি সতর্কতা গ্রহণ করেছেন। ক্রাইস্টচার্চ গণহত্যার পর মুসলমানসহ বিভিন্ন সম্প্রদায়ের নিরাপত্তার বিষয়ে করণীয় ঠিক করতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করবেন বলে জানান কর্মকর্তারা।

 

সূত্র:আমাদের সময়

মন্তব্য

মন্তব্য