যদি মিলনে আগ্রহী না হন সঙ্গি, তখন কি করবেন জেনে নিন

অনলাইন ডেস্ক:মানুষের দেহের আর পাঁচটা চাহিদার মতোই যৌন মিলনও একটি চাহিদা৷ তবে অনেকেই নিজের সঙ্গীর কাছে রতিসুখের ইচ্ছে প্রকাশ করতে সংকোচ করেন৷ এবার থেকে অভ্যেসটা পাল্টে ফেলুন৷ নিজের মন ঠিক যা চায়, সেটাই করুন৷ এব্যাপারে বরং মাথাকে ঘুম পাড়িয়ে মন দিয়েই সিদ্ধান্ত নিন৷

বিভিন্ন কারণে আপনার যৌনমিলনের খিদে কমে যায়৷ অনেক সময় সম্পর্কের মধ্যে বোঝাপড়ার অভাবে ইচ্ছে কমে যায়৷ কখনও আবার সঙ্গীর উত্তেজনা না থাকলে নিজে থেকে জোর করে সুখ আদায়ের তাগিদটা মরে যায়৷ সঠিক সঙ্গীর না পাওয়ার কারণেই মূলত আপনার দেহের পাশবিক খিদেটা অদৃশ্য হতে থাকে৷ এমনটা একেবারেই হতে দেবেন না৷

সঙ্গীর জন্য নিজের চাহিদার সীমাটাকে কেটে ছোট করে ফেলার কোনও মানেই হয় না৷ দু’জনে মিলে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে সমাধানের রাস্তা খুঁজে বের করতে পারেন৷ ততক্ষণ কি যৌন মিলনে বিরতি নেবেন? ভেবে দেখতে পারেন৷ কারণ বিরতি চাহিদা দ্বিগুণ করতে সাহায্য করে৷

আবার ধরুন আপনি অথবা আপনার সঙ্গী হাজার চেষ্টা করেও রতিসুখের শিখরে পৌঁছতে পারছেন না৷ তার মানে মানসিকভাবে দু’জনে কোথাও আটকে রয়েছেন৷ পরস্পরের শরীরের প্রতিটা অংশকে ভালবাসুন৷ এতে মিলনে ‘প্যাশন’ বাড়বে৷

আপনার চাহিদা যদি আপনার সঙ্গীর থেকে কয়েকগুণ বেশি হয়, তাহলে তা মরতে দেবেন না৷ নতুন নতুন পদ্ধতিতে মিলন ঘটিয়ে তাঁকে উত্তেজিত করে তোলাও আপনার কাজ৷ মিলনের সময় বাড়লে চাহিদাও মিটবে৷

তবে অনেক ক্ষেত্রে বিষয়টি শারীরিক গঠনের ওপরও নির্ভর করে৷ আপনার অথবা আপনার পার্টনারের যৌন চাহিদায় ভাটার কারণ জানতে ফিজিওথেরাপিস্টের সাহায্যও নিতে পারেন৷ বিষয়টিকে বাড়তে দেওয়ার আগেই সমাধান সূত্র খুঁজে বের করাটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে৷ কারণ দিনের শেষে মানুষ সুখেই থাকতে চান৷

মন্তব্য

মন্তব্য