কলাপাড়ার জননী প্যাথলজি সেন্টারে আত্বহত্যা করেছেন এক তরুনী।

এস,এম,ইলিয়াস, মহিপুর থানা প্রতিনিধি,,পটুয়াখালী// :কলাপাড়ার পুরাতন বাসস্টপ সংলগ্ন জননী প্যাথলজি সেন্টারের ই,সি,জি রুমে আত্বহত্যা করেছেন অনিকা রানী মাঝি (১৭) , তার বাবার নাম নির্মল মাঝি তাদের বাড়ি কলাপাড়ার নাচনাপাড়ার লোকনাথ মন্দির রোডে বলে যানা যায়। শনিবার সকাল আট টার দিকে ল্যাবে আসেন অনিকা, সকাল দশটা ত্রিশ মিনিটের কোন এক সময়ে প্যাথলজি রুমের দরজা বন্ধ করে গলায় ওরনা পেচিয়ে ফ্যানের সাথে আত্ত্বহত্যা করেন তিনি। ই,সি,জি রুমের দরজা বন্ধ দেখে ল্যাব কতৃপক্ষ থানায় খবর দেন,থানা পুলিশ এসে লাস উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে পটুয়াখালীর মর্গে প্রেরন করেন। এ ঘটনায় কি কারনে হয়েছে তা এখনও জানা কিছুই যায় নি। কলাপাড়ার অফিসার ইনচার্জ মো: মনিরুল ইসলাম বলেন এই অপমৃূত্যুর মূল রহস্য উদঘাটনে ময়না তদন্ত করানোর জন্য আবেদন করা হয়েছে মৃতুর রিপোর্ট প্রাপ্তি হলে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।কলাপাড়া থানার এস আই বিপ্লব জানান অপমৃত্যু সম্পর্কীয় মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য

মন্তব্য