পরীক্ষা চলাকালে চালু রাখায় ৮ কোচিং সেন্টার সিলগালা!

সুজন কৈরী : সরকারি নির্দেশ অমান্য করে এসএসসি পরীক্ষা চলাকালে কোচিং চালু রাখায় রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর ও কদমতলী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৮কোচিং সেন্টারকে জরিমানা ও সিলগালা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার বেলা ১২ টা থেকে সন্ধ্যায় ৭টা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়। র‌্যাব-১০ পরিচালিত আদালতের নেতৃত্ব দেন র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গাউছুল আজম।

র‌্যাব-১০ এর উপ-অধিনায়ক মেজর মো. আশরাফুল হক বলেন, সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এসএসসি পরীক্ষার চলাকালে কোচিং চালু রাখার খবর পেয়ে অভিযানটি চালানো হয়। এ সময় ৮ টি কোচিং সেন্টারকে সিলগালা ও বিভিন্ন পরিমাণে আর্থিক জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এদের মধ্যে দক্ষিণ দনিয়ায় প্রিভেইল কোচিং সেন্টার, শনির আখড়ার ফরম্যাট কর্মাস কোচিং সেন্টার ও যাত্রাবাড়ীর সমীকরণ কোচিং সেন্টারকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। কদমতলী এলাকার চ্যালেঞ্জার কোচিং সেন্টার, জেনুইন কোচিং সেন্টার ও বেস্ট কোচিং সেন্টারকে ১ হাজার টাকা করে, ফরম্যাট একাডেমী কোচিং সেন্টারকে ৫শ’ টাকা এবং এমআর কোচিং সেন্টারকে দেড় হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গাউছুল আজম বলেন, অভিযানকালে দেখা যায় যাত্রাবাড়ি আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের গণিত ও পদার্থ বিদ্যার দুইজন শিক্ষক মোশারফ হোসেন এবং গোলাম মাওলার নিজ বাসভবনে কোচিং সেন্টার চালাচ্ছেন। শিক্ষক হয়েও সরকারী নির্দেশ না মানার অপরাধে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য ঢাকা জেলা শিক্ষা অফিসার বেনজির আহমেদকে অবহিত করা হয়। পরে আইডিযাল স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষকের জিম্মায় তাদের ছাড়া হয়। প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, অধিকাংশ শিক্ষক শ্রেণিকক্ষে ঠিকমতো ক্লাস নেন না। ক্লাসের সময় তারা মোবাইল চালান বা কথা বলেন। শিক্ষকের বাসায় বা কোনো কোচিং সেন্টারে পড়ার জন্য তারা শিক্ষার্থীদের বাধ্য করেন। এরকম নানা অভিযোগ অভিযানকালে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা করেছে।

মন্তব্য

মন্তব্য