কুমিল্লার পুলিশ সুপার চতুর্থবারের পিপিএম পদক পেলেন

হালিম সৈকত,কুমিল্লা//
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ তারিখ সোমবার রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে “পুলিশ সপ্তাহ-২০১৯” এর প্যারেড কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে ২০১৮ সালে অপরাধ দমনে অসীম সাহসিকতা, সেবা ও কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি স্বরূপ কুমিল্লার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম(বার) পিপিএম কে চতুর্থ বারের মতো রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ পদক পরিয়ে দিলেন। ইতোপূর্বে সৈয়দ নুরুল ইসলাম সাহসিকতার জন্য ২০১১ সালে পি.পি.এমপদক, ২০১৩ ও ২০১৮ সালে বাংলাদেশ পুলিশের সর্বোচ্চ পদক বি.পি.এম অর্জন করেন। সৈয়দ নুরুল ইসলাম ১৯৭১ সালের ১লা মার্চ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার শিবগঞ্জের জালমাছমারি গ্রামের ঐতিহ্যবাহী মুক্তিযোদ্ধা পরিবারে জন্মগ্রহন করেন।তারপিতাএবংবড়ভাইবীর মুক্তিযোদ্ধা।তারপিতা- বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুমকশিমুদ্দীনমিঞা, মাতা- মরহুমগুলনাহার বেগম। চারভাই ও এক বোনেরমধ্যে তিনিচতুর্থ।বড়ভাইবীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আলী হোসেন। ১৯৮৬ সালেলালমনিরহাটবাংলাদেশ রেলওয়েচিলড্রেনপার্ক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞানশাখা থেকে ১ম বিভাগেএস.এস.সি, ১৯৮৮ সালেরাজশাহীকলেজ থেকে ১ম বিভাগেএইচ.এস.সি, ১৯৯১ সালেতিনিঢাকাবিশ^বিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সাথে বিএসসি, ১৯৯৩ সালেএম.এস.সিপাসকরেন। পরবর্তীতেঢাকাবিশ^বিদ্যালয় থেকে ১৯৯৭ সালেএম.এ.এসডিগ্রীঅর্জনকরেন।ছাত্রজীবনেতিনিপ্রগতিশীলছাত্ররাজনীতি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিককর্মকান্ডের সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। সৈয়দ নুরুলইসলাম২০তম বি.সি.এসএরমাধ্যমে ২০০১ সালেতিনিবাংলাদেশ পুলিশেরসহকারীপুলিশসুপারহিসেবেকর্মজীবনশুরুকরেন। পরবর্তীতেঢাকা মেট্রোপলিটনপুলিশের কোতয়ালী থানারসহকারীপুলিশকমিশনার, জাতিসংঘেরশান্তিরক্ষামিশন, রমনাবিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশকমিশনার ও উপ-পুলিশকমিশনার,নারায়ণগঞ্জ জেলারপুলিশসুপার,উপ-পুলিশকমিশনারওয়ারী জোন, ডিএমপি, ঢাকা, বিশেষপুলিশসুপার (এস.বি)ঢাকাএবংপুলিশসুপারময়মনসিংহেঅত্যান্তসুনাম ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালনকরে ১৪ আগস্ট-২০১৮খ্রিঃ ঐতিহ্যবাহীকুমিল্লা জেলারপুলিশসুপারের দায়িত্বভারগ্রহণকরেন। ঢাকা মেট্রোপলিটনপুলিশের উপ-পুলিশকমিশনার থাকাবস্থায়তিনিসাহসিকতার সাথে যুদ্ধাপরাধীমতিউররহমাননিজামী, কামরুজ্জামান, এটিএমআজহারুলইসলাম, কাদের মোল্লা’কে গ্রেফতারকরেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনারপ্রশ্নেআপোষহীন সৈয়দ নুরুলইসলামমাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ দমনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাপালনকরছেন। জনবান্ধব সেবামুখীপুলিশিংনিশ্চিতকরণেকমিউনিটিপুলিশিংকার্যক্রমকে জোরদারকরারপাশাপাশি ব্যক্তিগত প্রচেষ্টায়আর্ত মানবতার সেবায়তিনি উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপনকরেছেন। ইতোমধ্যে তিনি বাংলাদেশ পুলিশসার্ভিসএসোসিয়েশনএরসাধারণসম্পাদকের দায়িত্ব পালনকরেছেন। বর্তমানে ২০তম বিসিএস ফোরামেরসাধারণসম্পাদকের দায়িত্ব পালনকরছেন। একজনসুদক্ষসংগঠকএবং সুবক্তা হিসেবেতারসুখ্যাতিরয়েছে।

মন্তব্য

মন্তব্য