পরকীয়ার জেরে বাড়িতে ডেকে হত্যার চেষ্টা

লিজা আক্তার, বিশেষ প্রতিনিধি, কুমিল্লা: পরকীয়ার জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে বাড়িতে ডেকে এনে হত্যার চেষ্টা করেন পাশের  বাড়ির হারুন ঢালীর স্ত্রী শিরিনা বেগম। স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, একই গ্রামের পাশের বাড়ির আব্দুল কাদির এর ছেলে ফয়সাল আহমেদ বিটেশ্বর ইউনিয়ন, সাং- চন্দ্রশেখরদী দাউদকান্দি কুমিল্লা, দীর্ঘদিন পরকীয়া সম্পর্ক থাকার কারণে তাদের মাঝে আর্থিক লেনদেন হয়। আহত ফয়সাল জানান সম্পর্কের খাতিরে বিদেশ থাকাকালীন অর্থ এবং দেশে ফিরে এসে যা কামাই করতেন শিরিনা বেগমের ভালবাসা অন্ধ হয়ে কোন কিছু বুঝার আগেই সর্বস্ব দিয়ে দেয়। ফয়সাল যখন বুঝতে পারে, তার সাথে ছলনা করতেছে। তখন সে তার অর্থ ফেরত চায় ।এবং কৌশলে অর্থ ফেরত দেওয়ার কথা বলে গতকাল শনিবার ০১/১২/২০১৮ইং সেলিনা বেগমের শ্বশুর বাড়িতে রাতের অন্ধকারে আসার জন্য বলে। ফয়সাল বুঝতেই পারিনি আসল উদ্দেশ্য কি ছিল। অর্থ ফেরত পাওয়ার উদ্দেশ্যে সে শিরিনার বাড়িতে আসতে রাজি হয় এবং যথারীতি আনুমানিক রাত ৮/৯টা নাগাদ এসে পৌঁছান। এবং উভয় দীর্ঘ সময়  কাটানোর পর এক সময় ছেলেটি ঘুমিয়ে পড়লে, তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলায় আঘাত করে। ছেলেটি যখন বুঝতে পারে তাকে আঘাত করা হয়েছে তখন সে গলায় হাত দিয়ে বুজতে পারে রক্তে পুরা শরীর এবং বিছানা ভিজে গেছে । এবং ছেলেটি বুঝতে পারে তাকে মেরে গুম করে ফেলার উদ্দেশ্যে হয়তো উনার সাথে অন্য আরও কেউ অপেক্ষমান আছে। তাদেরকেই ডাকতে গেছে শিরিনা বেগম। জীবন রক্ষার তাগিদে লুকিয়ে ঘর থেকে বের হওয়ার চেষ্টা করেন আহত ফয়সাল,
ফয়সাল আরো জানান স্থানীয় কতিপয় দুইজন লোককে শিরিনা বেগম রাতের অন্ধকারে বাড়িতে নিয়ে এসে তাকে মারতে মারতে ডাকাত বলে রাস্তায় ফেলে রেখে যাওয়ার চেষ্টা করে ততক্ষণে সকাল হয়ে যাওয়ায় এলাকার লোকজন জেনে ফেলায় স্থানীয়দের সহযোগিতায় চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক স্থানীয় লোকজন আমাদেরকে জানান ,স্থানীয় মনির এবং নজরুল শিরিনা বেগম কে এই অনৈতিক কাজে সহযোগিতা করেছেন এবং বিগত দিন নজরুল ও মনিরে সহযোগিতায় ওই নারী গোপনে অনেক অপকর্ম করে আসছেন। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এই বিষয়ে কোনো মামলা হয়নি। ফয়সালের পরিবার বর্গ বলেন স্থানীয় চেয়ারম্যান মেম্বার এলাকার সকল গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। বর্তমানে ফয়সাল আহমেদ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

মন্তব্য

মন্তব্য