গাজীপুরে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের অভিযোগে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ

সাইফুল আলম সুমন, নিজস্ব প্রতিবেদক:
শ্রমিক ছাঁটাইয়ের অভিযোগে গাজীপুর সদর উপজেলার ভবানীপুর এলাকার এন জেড শিল্প গ্রুপের স্থানীয় সি এ নীটওয়্যার লিমিটেডের শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এতে সড়কের দুই পাশে কমপক্ষে ১০ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে, এতে ভোগান্তিতে পরে দুই পাশে দাড়িয়ে থাকা শতশত যানবাহন যাত্রীরা । বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত প্রায় চার ঘন্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে শ্রমিকেরা। পরে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ও লাঠি চার্জ করে শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সড়িয়ে দেয়। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রশাসন ও মানব সম্পদ বিভাগের তিন কর্মকর্তাকে আটক করে।

আটককৃতরা হলেন, কারখানার বিভাগীয় প্রধান (মানব সম্পদ ও প্রশাসন) জাকির হোসেন খান, সহকারী ব্যবস্থাপক সাকিবুল হাসান ও নির্বাহী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম।

বিক্ষোভকারী শ্রমিক রোকেয়া বেগম জানান, কর্মস্থলে কাজ করার সময় কথা বলা, নামাজ পড়তে যাওয়া, ওয়াশরুমে অতিরিক্ত সময় কাটানোসহ নানা মানবিক কারণে শ্রমিকদের চাকুরীচ্যুত করছে কারখানা কর্তৃপক্ষ। এরকমভাবে গত এক সপ্তাহে কমপক্ষে চার’শ শ্রমিককে চাকুরীচ্যুত করা হয়। শ্রমিকদেরকে চাকুরীচ্যুত করা হলেও শ্রম আইন অনুযায়ী কোনো ভাতাদি পরিশোধ করা হয় না।

কারখানার কাটিং অপারেটর জান্নাত আরা বলেন, গত ৪/৫ দিন আগে তাকে উৎপাদন ফ্লোর থেকে ডেকে নিয়ে সাদা কাগজে স্বাক্ষর দিতে বলে। পরে স্বাক্ষর না দিলে তাকে জোর করে কারখানা থেকে বের করে দেয়। ফিনিশিং বিভাগের অপারেটর হাসিনা বেগম ও আবু বকর, সুইং অপারেটর জাহানারা বেগম ও তারেক মিয়া জানান, আজ (২৯ নভেম্বর) সকালে কাজে যোগ দিতে আসলে নিরাপত্তা কর্মীরা প্রায় ৪’শ শ্রমকিকে কারখানায় প্রবেশ করতে দেয়নি। পরে শ্রমকিরো লাঠিসোটা নিয়ে পাশের ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে সড়ক অবরোধ করে। তাছাড়া ছাঁটাইকালে শ্রম আইন অনুযায়ী পাওনাদি পরিশোধ না করে জোরপূর্বক বের করে দেয়।

শ্রমিকেরা আরো জানান, এসবের প্রতিবাদে কারখানার চাকুরীচ্যুত চারশ শ্রমিক ও তাদের প্রায় তিন হাজার সহকর্মী শ্রমিক কাজে যোগদান নরা করে লাঠিসোটা নিয়ে বৃহষ্পতিবার সকাল আটটায় গাজীপুর সদর উপজেলার ভবানীপুর এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল আটটার দিকে বিক্ষোভকারী শ্রমিকেরা কারখানার কর্মকর্তাদের খোঁজাখুঁজি শুরু করে। তাদের না পেয়ে পরে শ্রমিকেরা মহাসড়ক অবরোধ করে। সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে লাঠিসোটা নিয়ে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এডিশনাল এসপি) সাহেব আলী পাঠান জানান, জয়দেবপুর থানা, মাওনা হাইওয়ে ও শিল্প পুলিশের সদস্যরা প্রথম দিকে মহাসড়ক থেকে শ্রমিকদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। পরে জনবল বাড়িয়ে দুপুর পৌণে ১২টার দিকে লাঠিচার্জ, ফাঁকা গুলি ও কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে শ্রমিকদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয় এসময় বিক্ষোভকারী মহাসড়ক ছেড়ে চলে গেলে যানবাহন চলাচল শুরু হয়।

গাজীপুর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এডিশনাল এসপি) গোলাম সবুর জানান, প্রশাসন ও মানব সম্পদ বিভাগের তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ থাকায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাদেরকে আটক করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কারখানার বিভাগীয় প্রধান (মানব সম্পদ ও প্রশাসন) জাকির হোসেন খান সাংবাদিক পরিচয় শুনে পরে কথা বলবে বলে লাইন কেটে দেন।

মন্তব্য

মন্তব্য