জাতীয় পার্টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ৫ নভেম্বর সংলাপ করবে

 

অনলাইন ডেস্ক //  বুধবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে চিঠি নিয়ে যান জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায় এবং প্রানমন্ত্রীর পিএস-০১ এর দপ্তরে পৌঁছান। এরই প্রেক্ষিতে একই দিন সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধী দল বারিধারার এরশাদের প্রেসিডেন্ট পার্কের বাসায় সংলাপের জন্য প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণপত্র নিয়ে আসেন, যাহা গ্রহণ করেন পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ।
প্রধানমন্ত্রীকে দেয়া ওই চিঠিতে এরশাদ লিখেছেন-সংলাপের উদ্যোগ গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আয়োজনে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে। জাতীয় পার্টির সঙ্গে আলোচনা হলে অনুকূল পরিবেশকে আরও উজ্জ্বল করবে।এরশাদের জাতীয় পার্টি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সংলাপ করবে  ৫ নভেম্বর। ওইদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারী বাসভবন গণভবনে এ সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে। সম্মিলিত জাতীয় জোটের পক্ষ থেকে সংলাপের চিঠি দিয়েছেন এরশাদ।উল্লেখ্য আওয়ামী লীগের সঙ্গে নবম জাতীয় সংসদে নির্বাচনে অংশ নেয় জাতীয় পার্টি। পরে ২০১৪ সালে বিএনপি নির্বাচন বর্জন করলে এরশাদ নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি সংসদে প্রধান বিরোধীদলের তকমা পায়। দলটির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ সংসদে প্রধান বিরোধীদলীয় নেতা হন।সংসদে বিরোধী দল হলেও সরকারের মন্ত্রিসভায় জাতীয় পার্টির একজন মন্ত্রী ও দুজন প্রতিমন্ত্রী রয়েছেন। এরশাদও হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ দূত।বিএনপির পক্ষ থেকে সংলাপে বসার আহ্বান সরকারি দলের পক্ষে বরাবর নাকচ করা হলেও গণফোরাম সভাপতি কামাল হোসেনের নেতৃত্বে নবগঠিত রাজনৈতিক জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রস্তাবে সাড়া দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মন্তব্য

মন্তব্য