শ্রীপুরের শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রী উত্যক্তের অভিযোগ

শাহীনুর আলম,শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি:

গাজীপুরের শ্রীপুরে বলদীঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে এক ছাত্রীকে মোবাইল ফোনে কু প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ছাত্রীর মাতা উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তার নিকট রোববার বিকেলে অভিযোগ দায়ের করেছে।

ওই অভিযোগে সোমবার বেলা ১২টার দিকে বিদ্যালয়ের অফিসকক্ষে একটি ষড়যন্তকারী মহলের উস্কানিতে ছাত্র/ছাত্রীরা ইট পাটকেল নিক্ষেপ ও শ্রেণীকক্ষের বেঞ্চ ভাংচুর করেছে। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মো. সিরাজ উদ্দিন অভিযোগের প্রতিবাদ জানিয়ে ঘটনাটি পরিচালনা পরিষদ সংক্রান্ত বিষয়ে ষড়যন্ত্রের শিকার বলে দাবী করেছেন।

ওই বিদ্যালয়ের এক জেএসসি পরীক্ষার্থী অভিযোগ করেন, ওই শিক্ষক তাকে মোবাইল ফোনে অশ্লীল কথাবার্তা বলেছেন। জেএসসির ফরম পূরণের সময় তার কাছে ফরম পূরণের প্রস্তুতির কথা বলে দুই হাজার টাকা দাবী করেন। টাকা দিতে ব্যার্থ হলে ফরম ফুরণের সুযোগ দেয়া হবে না। পরে অনেক অনুয় বিনয় করার পরও ফরম পূরণে সক্ষম হন। অভিযোগের ব্যাপারে বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের দাতা সদস্য কবির হোসেন বলেন, একটি মহল প্রধান শিক্ষককে ষড়যন্ত্র করে বিদ্যালয় থেকে সরানোর পাঁয়তারা করছে।

বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, ওই ছাত্রীর কোনো প্রবেশপত্র বিদ্যালয়ে এসেছে কিনা সেটাই আমরা জানি না। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক বলেন, ওই ছাত্রী র্মাচ মাস থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থাকে। একটি মহল পরিচালনা পরিষদ সংক্রান্ত বিষয়ে ষড়যন্ত্র করে আমাকে বিদ্যালয় থেকে সরানোর কৌশল করছে। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষার্থীদের উষ্কানি দিয়ে ক্লাস বর্জন, বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও বেঞ্চ ভাংচুর করিয়েছে। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্যি হলে যে কোনো শাস্তি মাথা পেতে নেব।

শ্রীপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) নির্দেশে ঘটনাস্থলে একজন কর্মকর্তাকে পাঠানো হয়েছিল। তদন্ত হয়েছে কিন্তু বাদীকে বিদ্যালয়ে পাওয়া যায়নি বা উপস্থিত হয়নি।

মন্তব্য

মন্তব্য