শ্রীপুরে ৭টি প্রতিমা ভাংচুর করেছে দূর্বৃত্তরা

সাইফুল আলম সুমন, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
আর মাত্র কিছুদিন পরই পূজারীর কলরবে মূখরিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তা আর হলো না। দূর্বৃত্তের হাতে যবনিকাপাত ঘটলো গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ ইউনিয়নের সোনাব গ্রামের দুটি মন্দিরের সাতটি প্রতিমা। রোববার রাতের যে কোন সয়ম প্রতিমা ভাঙার ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে মন্দির সংশ্লিষ্টদের ধারণা।

সোমবার দুপুরে মন্দির পরিদর্শন করে দেখা যায়, দুটি কক্ষের মেঝেতে ভাঙা প্রতিমাগুলো পড়ে আছে। এগুলোর অধিকাংশই ক্ষতিগ্রস্থ।প্রতিটি প্রতিমার অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ভাঙা। প্রতিমা ছাড়াও মন্দিরের বিভিন্ন স্থানে আশবাবপত্র ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে আছে।

মন্দিরের অধিকর্তা প্রদীপ চক্রবর্তী জানান, গত ৫৮ বছর ধরে এখানে মন্দিরে মণ্ডপ তৈরি হয়। নিয়মিত পূজারীরা পূজা দিয়ে আসছেন। সম্প্রতি স্থানীয় আবুল হাসেন মন্দিরটির একটি অংশ নিজের দাবি করে বসেন। তিনি তার দুই ছেলেকে নিয়ে ওই অংশ দখল করে নেন। গত শনিবার ওই জমিতে গাছ রোপন করতে গেলে মন্দিরে আসা সুনীল নামের এক পূজারী বাধা দেন। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে সুনীলকে পেটানো হয়। তিনি আহত হয়ে এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। রোববার এ ঘটনায় শ্রীপুর থানায় মামলা হয়। পরে সোমবার সকালে মন্দিরে ঝাড়– দিতে গিয়ে এক নারী প্রতিমা ভাঙা দেখতে পেয়ে সংশ্লিষ্টদের খবর দেয়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাবেদুল ইসলাম বলেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেছি। এখানে কিছু প্রতিমা ভাংচুর করেছে দূর্বৃত্তরা। আমার এর সাথে জড়িতদের তদন্ত করে বের করে আইনের আওতায় আনবো।

মন্তব্য

মন্তব্য