কক্সবাজারে মোটেল শৈবাল থেকে উদ্ধারকৃত কোটি টাকার মাদক ধ্বংস।

রাসেল তালুকদার,কক্সবাজার ব্যুরো প্রধান // কক্সবাজারে ধ্বংস করা হল হোটেল শৈবালের গল্ফ বার থেকে উদ্ধার করা কোটি টাকার মাদক দ্রব্য। গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর রাতে উদ্ধার হওয়া এসব প্রায় কোটি টাকা মূল্যের অবৈধ মাদদক দ্রব্য কক্সবাজার আদালত প্রাঙ্গনে ধ্বংস করা হয়েছে।
সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আদালতের নির্দেশক্রমে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রাজীব কুমার দেবের নেতৃত্বে  এসব মাদক দ্রব্য আনুষ্ঠানিকভাবে ভেঙ্গে চুরে নষ্ট করে দেয়া হয়। এ সময় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের তত্ত্বাবধায়ক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ ইদ্রিস আলী, কক্সবাজার মালখানার ওসি উপ-পুলিশ পরিদর্শক ফারুক আহম্মদ ভুইঁয়া, জেলা মাদকদ্রব্য অফিসের পরিদর্শক আবদুল মালেক তালুকদারসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয়ের তত্ত্বাবধায়ক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ ইদ্রিস আলী বলেন, কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারকের ৫ সেপ্টেম্বরের আদেশ (নং-৪), চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের স্মারক নং-১৪৮২/১৮ এর ভিত্তিকে মাদক দ্রব্যসমূহ ধ্বংস করা হয়।২০১৭ সালের ১৬ ডিসেম্বর দিবাগত রাত ৯টার দিকে হোটেল শৈবালের গল্ফ বারে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন ব্রান্ডের প্রায় কোটি টাকামূল্যের মাদদক দ্রব্য উদ্ধার করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের গোয়েন্দা শাখা।এ ঘটনায় পরের দিন শৈবাল গলফ বারের সহকারী ম্যানেজার মোঃ আব্দুল আলিমকে একমাত্র আসামী করে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় মামলা (নং-২১) দায়ের করেছিলেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম বিভাগের গোয়েন্দা কার্যালয়ের পরিদর্শক জীবন বড়ুয়া।যার জিআর-১০৭৬/১৭, দায়রা মামলা নং-৯৬৫/১৮। এ মামলায় আসামি মোঃ আব্দুল আলিম কারাভোগ করেন।

মন্তব্য

মন্তব্য