বঙ্গবন্ধু দেশ ও জনগনের জন্য আমৃত্যু কাজ করে গেছেন – প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি

মো. ইব্রাহীম খন্দকার,কালীগঞ্জ (গাজীপুর): প্রতিনিধি মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেছেন, বছরের পর বছর মানুষের অধিকারের জন্য সংগ্রাম করে গেছেন বঙ্গবন্ধু। তিনি নিজের জন্য ভাবেনি। দেশ ও জনগনের জন্য আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের কাজগুলো বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা বাস্তবায়নের জন্য নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আমাদের সকলের উচিত এই বাস্তবায়নে সামগ্রিকভাবে অংশগ্রহণ করা। আজকের এই দিনটা আমাদের সকলের জন্য দুর্ভাগ্য আমরা বঙ্গবন্ধুকে হারিয়েছি। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের বিচার করে জাতির কলঙ্ক অধ্যায় অনেকাংশে দূর করা হয়েছে। বাকী খুনিদেরও বিচারের আওতায় আনা হবে।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে চললে একদিন সাফল্য আসবে। আপনারা নিজের জন্য নয় সমাজ ও দেশের মানুষের জন্য কাজ করুন। তাহলে সার্থক হবে জীবন। আপনারা প্রতিটি ওয়ার্ডে গিয়ে জনগনের কাছে সরকারের উন্নয়ন নিয়ে কথা বলুন। স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে গতকাল বুধবার বিকেলে কালীগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি এমপি এসব কথা বলেন।
এই সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পরিমল চন্দ্র ঘোষ ও কামালউদ্দিন দেওয়ান, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মো. মোয়াজ্জেম হোসেন পলাশ ও এবিএম তারিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী বশির আহমেদ, প্রচার সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন স্বপন, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মো. মাইনুল ইসলাম, কালীগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আহমেদুল কবির, সাধারন সম্পাদক শাহ আলম দেওয়ান, কালীগঞ্জ পৌর যুবলীগের সভাপতি মো. বাদল হোসেন, কালীগঞ্জ পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আলী আল রাফু অমিত, কালীগঞ্জ শ্রমিক কলেজ শাখার ছাত্রলীগের সভাপতি মো. তানভীর মোল্লা প্রমুখ।
এছাড়া সকালে কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে ইউএনও খন্দকার মু. মুশফিকুর রহমানের নেতৃত্বে এক শোক র‌্যালি বের হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে র‌্যালিটি শিশুমেলা আইডিয়াল একাডেমিতে গিয়ে এক আলোচনা সভা, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ নিয়ে প্রতিযোগিতা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় মিলিত হন। তাছাড়া প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় শোক দিবসে আলোচনা সভা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। মাগরিব বাদ কালীগঞ্জ রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য

মন্তব্য