ইরানের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি নন

আন্তর্জাতিক: ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিসি) বলেছে, প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি কোনোদিনও তার মার্কিন সমকক্ষ ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন না। আইআরজিসি’র প্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ আলী জাফারি মঙ্গলবার রাতে এক প্রতিক্রিয়ায় এ মন্তব্য করেন।

ইরানের সঙ্গে আলোচনায় বসার আগ্রহ প্রকাশ করে ট্রাম্প সোমবার যে বক্তব্য দিয়েছেন সে সম্পর্কে এক বক্তব্যে জেনারেল জাফারি আরো বলেন, ইরানের জনগণ তাদের দায়িত্বশীলদের কখনোই বড় শয়তান আমেরিকার সঙ্গে আলোচনায় বসার অনুমতি দেবে না।

তিনি ট্রাম্পকে উদ্দেশ করে বলেন, ইরান উত্তর কোরিয়া নয় যে আমেরিকার আহ্বানে ইতিবাচক সাড়া দেবে। আধিপত্যবাদ মেনে নিতে প্রস্তুত দেশগুলোর সঙ্গে ইসলামপ্রিয় ইরানি জনগণের ব্যাপক পার্থক্য রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

জেনারেল জাফারি বলেন, ইরানি জাতি কখনো হুমকি বরদাশত করে না এবং বিদেশিদের যে কোনো চাপের মুখে তাদের মধ্যে ঐক্য ও সংহতি বেড়ে যায়।

মার্কিন কর্মকর্তাদের ধোঁকাবাজি সম্পর্কে ইরান পুরোপুরি অবগত রয়েছে উল্লেখ করে আইআরজিসি’র প্রধান বলেন, ইরানের সরকার ও জনগণ তাদের মহান নেতার দিকনির্দেশনায় অভ্যন্তরীণ সক্ষমতা ও আল্লাহর দেয়া খনিজ সম্পদ ব্যবহার করে আমেরিকার নিপীড়নমূলক নিষেধাজ্ঞার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারবে। বিশ্ব সাম্রাজ্যবাদী শক্তির পতনের মাধ্যমে চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত ইরানি জনগণের প্রতিরোধ অব্যাহত থাকবে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সোমবার দাবি করেন, তিনি ইরানের সঙ্গে ‘নিঃশর্ত’ আলোচনায় বসতে চান। ট্রাম্প এমন সময় এ প্রতারণামূলক ঘোষণা দিলেন যখন তিনি গত ৮ মে একতরফাভাবে ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে আমেরিকাকে বের করে নেন। একইসঙ্গে আগামী ছয় মাসের মধ্যে ইরান বিরোধী নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালেরও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। ট্রাম্পের এ ঘোষণার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সমাজ।

মন্তব্য

মন্তব্য