শ্রীপুরে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্রকরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১০

সাইফুল আলম সুমন,নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
গাজীপুরে শ্রীপুর উপজেলার কাওরাইদ স্কুল মাঠে ৪৭ তম আন্ত স্কুল প্রতিযোগীতার ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা জৈনা কাওরাইদ আঞ্চলিক সড়কের বলদীঘাট বাজারে বেশ কিছু যানবাহনে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ২২জুলাই রবিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার কাওরাইদ কে এন উচ্চ বিদ্যালয় বনাম বলদীঘাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ফুটবল খেলার শেষে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় অন্তত ১০ শিক্ষাথী আহত হয়। পরে আহতদের উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী শিক্ষার্থীরা জানান, গতকাল (২২জুন) সকাল সাড়ে দশটার দিকে কাওরাইদ কেএন উচ্চবিদ্যালয় ও বলদীঘাট জানমাহমুদ উচ্চবিদ্যালয়ের মধ্যে আন্তস্কুল ফুটবল প্রতিযোগিতার কোয়ার্টার ফাইনাল খেলা চলছিল। পরে খেলার দি¦তীয় আর্ধের আগেই এক গোলে এগিয়ে যায় বলদীঘাট উচ্চবিদ্যালয়। এ সময় দ্বিতীয় আর্ধের খেলার শেষের দিকে রেফারির সিদ্ধান্ত নিয়ে কাওরাইদ উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অষন্তোস প্রকাশ করে রেফারিকে মারধর করে। এ সময় এর প্রতিবাদ করলে বলদীঘাট উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে কাওরাইদ উচ্চবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এ সময় বলদীঘাট উচ্চবিদ্যালয়ের বেশ কিছু শিক্ষার্থী আহত হয়।

বলদীঘাট উচ্চবিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক ওমর ফারুক জানান,৪৭তম উপজেলা আন্তস্কুল ফুটবল প্রতিযোগিতার খেলা চলছিল। পরে এক গোলে এগিয়ে যাওয়ায় তারা উত্তেজিত হয়ে পড়ে। হামলাকারীরা সবাই স্কুলের পোশাক পরিহিত ছিল। আমাদের বিজয় নিশ্চিত জেনেই তারা এ হামলা করেন। এ সময় তাদের থামাতে গেলে দশম শ্রেণির রুবেল, সাগর, নবম শ্রেণির সোহেল, আওলাদসহ অন্তত ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

কাওরাইদ ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে। পরে আহতদের উদ্ধার করে নিজ খরচে স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

শ্রীপুর থানার এসআই রাজীব কুমার সাহা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিবেশ শান্ত পেয়েছে। তবে সকালে একটু উত্তপ্ত ছিল এলাকা। এ সময় দুএকটি যানবাহনে সামান্য হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয়রা জানান।

মন্তব্য

মন্তব্য