………..পিতার খুনি ছেলে ………..

মো ইদ্রিস সাকিল, চট্রগ্রাম, সাতকানিয়া// দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার চরতি ইউনিয়নের তুলাতুলি এলাকায় আপন স্ত্রীর ও ছেলে হাতে মো:রিদুয়ান(৬৫)নামের এক ব্যাক্তি খুন হওয়ার খবর পাওয়া যায়।০৯জুলাই সোমবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে উপজেলার চরতি ইউনিয়নের তুলাতুলি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানা যায়।সুত্র জানাযায়, সাতকানিয়া থানার অন্তর্গত চরতী ইউনিয়নের তুলাতুলি গ্রামের বাসিন্দা মোঃ রিদুয়ান (৬৫) স্ত্রী ও ছেলের হাতে খুন হয়। ০৯জুলাই সোমবার দিবাগত রাত ৯টার সময় নিজের দোকান থেকে প্রতিদিনের ন্যায় বাড়িতে ফিরে আসে।১১ টার মধ্যকার সময়ে উনার বাড়ি থেকে কান্নার শব্দ শুনে এলাকা বাসি। কান্নার শব্দ শুনে তাদের বাড়ির পার্শ্ববর্তী লোকজন তার বাড়িতে ছুঠে যায়।এলাকাবাসী কান্নার কারণ জানতে যাইলে তার পরিবারের সদস্যের কাছ থেকে জানা যায় হার্ট এট্যাকের কারণে মারা গেছে। এ সংবাদ শুনে এলাকাবাসীরা শোকাহত হয়ে ওনার দাপন-কাপনের জন্য গোসলের ব্যবস্থা করতে গেলে তারা ছুরির আঘাতের ইংগিত পায়।তখন স্থানীয় লোকজন উক্ত ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে সংবাদটি জানায়। তৎখনাত খবর পেয়ে চেয়ারম্যান ডাঃ রেজাউল করিম ঘটনাস্তলে পৌছায়। উনার পরিদর্শনে জানা যায় লাশের তলপেটে ছুরির আঘাত। তখন উনি রিদুয়ানের পরিবারের সকল সদস্যকে ঘরবন্ধী করে রাখে। এবং সাথে সাথে পুলিশকে খবর দেয়। সংবাদ পেয়ে সাতকানিয়া থানা পুলিশ তাৎক্ষিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তত করে ময়না তদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। তখন পুলিশ রিদুয়ানের পরিবারের সদস্যকে গ্রেফতার করে থানা নিয়ে যায়।এবং পরে পুলিশের কাছ থেকে জানা যায় রিদুয়ানের স্ত্রী ও উনার ছোট ছেলে ইমেল (১৪) হল তার পকৃত খুনি। আসামিদের সাক্ষ প্রমাণের ভিত্তিতে এটাও জানা যায়।জিজ্ঞাসাবাদে একপযার্যে নিহতের স্ত্রী পারভিন আক্তার স্বীকার করে যে, পারিবারিক কলহের জের ধরে গতকাল রাতে সে তার স্বামীকে ঘুমন্ত অবস্থায় ছুরির আঘাত করেতার ছেলে খুন করেছে। তার স্বীকারোক্তি ও দেখানো মতে নিহতের বসত বাড়ীর উঠানের মাটির নিচ হতে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যার রহস্য উদঘাটন ও হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার রুজু প্রক্রিয়াধীন।
Attachments area

মন্তব্য

মন্তব্য