শ্রীপুরে রাস্তা সংস্কার ও জলাবদ্ধতা নিরসনে মানববন্ধন

সাইফুল আলম সুমন,নিজস্ব প্রতিবেদক:
গাজীপুরের শ্রীপুর পৌরসভার মাওনা চৌরাস্তা সড়ক সংস্কার ও জলাবদ্ধতা নিরসনের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ব্যবসায়ী, শিÿক-শিÿার্থী, রাজনৈতিক ব্যক্তি, চালক-হেলপার, যাত্রী ও এলাকাবাসী। শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত একঘন্টাব্যাপী মাওনা চৌরা¯Íা-মাওনা বাজার ও মাওনা-বারতোপা সড়ক সংস্কারের দাবীতে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। আগামী ৭দিনের মধ্যে সড়ক সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া না হলে বৃহত্তর কর্মসূচী দেওয়া হবে বলে জানান মানববন্ধনে অংশগ্রহনকারীরা।

ব্যবসায়ী জামাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি খন্দকার আনোয়ার হোসেনের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান, মাওনা চৌরা¯Íা ব্যবসায়ী মালিক কল্যাণ সমিতি সভাপতি মোশারফ হোসেন সরকার, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শামীম, শ্রীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কামাল ফকির, শ্রীপুর উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি রেফাজ আহমেদ মিলন, শিÿা ও পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন ব্যাবসায়ী ডা: গোলাম মো¯Íফা, শফিকুল ইসলাম মোড়ল, সারোয়ার আকবর, আব্দুল লতিফ, রুহুল আমিন, বাবুল আহমেদ, নুরুল ইসলাম, রাজ্জাক, নাসির, সিদ্দিক, ইদ্রিস, সোহাগ, জালাল শেখ, নজরুল ইসলাম, শেখ জসিম ও জাহাঙ্গীর আলমসহ স্থানীয় ব্যবসায়ীবৃন্দ।

মানববন্ধনে বর্ণমালা কিন্ডার গার্টেন, মিজান মডেল একাডেমী, মোহাম্মদ আলী মাষ্টার একাডেমী, চাইল্ড হুড একাডেমী, টাঙ্গাইল শাহিন ক্যাডেট স্কুল, মেরিট একাডেমীর শতাধিক শিÿক ও শিÿার্থীরা। তারা দ্রæত সময়ের মধ্যে সড়ক সংষ্কার ও জলাবদ্ধতা নিরসনের দাবি জানান। ব্যবসায়ী ও সাংবাদিক জামাল উদ্দিন জানান, দীর্ঘ কয়েক বছর যাবৎ শ্রীপুরের বিভিন্ন আঞ্চলিক সড়ক ভেঙ্গে চুরে একাকার হয়ে গিয়েছে। অন্যান্য সড়কগুলোর মধ্যে মাওনা চৌরা¯Íা-মাওনা বাজার ও মাওনা-বারতোপা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এসড়কের আশেপাশে প্রায় ১৫টি বেসরকারী হাসপাতাল, ১০/১২টি শিÿা প্রতিষ্ঠান, কয়েক হাজার ছোট বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় ও ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকার কারণে সৃষ্ট জলাবদ্ধতায় সড়কগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। মিজান মডেল একাডেমীর ৬ষ্ঠ শ্রেণীর শিÿার্থীরা ইমতিয়াজ আহমেদ লিমন বলেন, সড়ক ভাঙ্গা থাকায় সঠিক সময়ে বিদ্যালয়ে যেতে পারি না। রা¯Íায় চলাচলের সময় সড়কের ময়লা পানি গায়ে ছিটে জামা-কাপড় নষ্ট হয়ে যায়। ওইদিন স্কুলে অনুপস্থিত থাকতে হয়।

পিয়ার আলী কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিÿর্থী সোনিয়া আক্তার পপি, মাসুম বিলøাহ ও শারমিন আক্তার সাথী বলেন, সড়ক ভাঙ্গা থানার কারনে প্রায় সময়ই শিÿার্থীদের বহনকারী যান উল্টে আহত হওয়ায় ঘটনাও ঘটেছে। তাই দ্রæততম সময়ের মধ্যে ওই সড়ক সংস্কারের দাবি জানান শিÿার্থীরা।

মাওনা চৌরা¯Íা ব্যাবসায়ী মালিক কল্যাণ সমিতির সভাপতি মোশারফ হোসেন সরকার বলেন, এ এলাকার লোহজনের জন্য মাওনা চৌরা¯Íা-মাওনা বাজার ও মাওনা-বারতোপা সড়ক সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এ সড়ককে প্রতিনয়ত সকল ধরনের যানবাহন চলাচল করে। রা¯Íা ভাংগার কারণে যানজট লেগেই থাকে। সড়কের পাশের দোকানে মালামাল লোড-আনলোড করতে অনেক সময় অপচয় হচ্ছে।

শ্রীপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কামাল ফকির বলেন, হাসপাতালগুলোতে রোগী আনা নেয়া করতে সমস্যা হয়। দোকানগুলোতে ক্রেতা (কাস্টমার) না আসায় সবচেয়ে বেশি ÿতি হচ্ছে ব্যবসায়ীদের। লোকসানের মুখে অনেক ব্যবসায়ী তাদের ব্যবসা গুটিয়ে নিতে বাধ্য হচ্ছে।

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হারুন-অর রশীদ ফরিদ বলেন, বর্তমান সরকার দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও জনগনের কল্যাণে কাজ করার জন্য জন প্রতিনিধিদেরকে নির্দেশ দিয়েছেন। আমাদের এলাকার শান্তি প্রিয় মানুষ সড়ক সংস্কারের জন্য মানববন্ধন করেছেন। তারা কোনো সরকার ও দলের বিরুদ্ধে নয়, তারা জনগন ও উন্নয়নের স্বার্থে মানববন্ধন করেছেন। তাই দ্রæততম সময়ের মধ্যে তিনি ওই সড়ক সংস্কারে সংশিøষ্ট বিভাগের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন।

বক্তারা অভিযোগ করেন শ্রীপুর পৌরসভার মাস্টারোলের কর্মচারী মৌসুমী এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী সবুজ মিয়া ও ভাই ভাই এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী আব্দুল হামিদ পৌরসভা থেকে এ সড়ক উন্নয়নের কাজ পায়। তিন মাস পার হয়ে গেলেও তারা কাজ করেননি। এদিকে, সড়ক সংষ্কার না করায় এলাকাবাসী ও সড়কে চলাচলকারীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোটখাটো দুর্ঘটনা। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সবুজের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

সড়কটির দরপত্র পাওয়া ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ভাই ভাই এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী আব্দুল হামিদ বলেন, টেন্ডার আমরা পেয়েছি। বৃষ্টির জন্য রা¯Íা সংস্কারের কাজ করতে পারছি না। সড়কের ওপর আশ পাশের বাড়ির মালিকগন তাদের সেফটিক ট্যাংকের পানি ছেড়ে দেয়ার কারণে দীর্ঘদিন ধরে পানি জমাট বেঁধে থাকে। অচীরেই বৃষ্টি না থাকলে আগামী ৭ দিনের মধ্যে সড়কটি আরসিসি ঢালাইয়ের কাজ শুরু করা হবে।

মন্তব্য

মন্তব্য