গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রস্তুতি সম্পন্ন, সোমবার কেন্দ্রে যাবে সরঞ্জাম

সাইফুল আলম সুমন, নিজস্ব প্রতিবেদক//
গাজীপুর সিটি করপোরেশন (জিসিসি) নির্বাচনের জন্য সংশ্লিষ্ট নির্বাচনি সরঞ্জাম বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়। রবিবার (২৪ জুন) সকাল থেকে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রের মালামাল পৃথকীকরণের কাজ শুরু করেছেন। মহানগরের বঙ্গতাজ অডিটরিয়ামের দ্বিতীয় তলায় রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে নির্বাচনি সরঞ্জামগুলো গোছানোর প্রস্তুতি চলছে।

রবিবার (২৪ জুন) গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মণ্ডল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রকিব উদ্দিন মণ্ডল আরও জানান, নির্বাচনি এলাকায় রবিবার রাত ১২টা থেকে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তবে অ্যাম্বুলেন্স, ডাক বিভাগ, ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি এ নির্দেশনার বাইরে থাকবে। নির্বাচন উপলক্ষে ভোটের দিন (২৬ জুন) সব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে সঙ্গে কলকারখানা বন্ধ রাখার জন্য ব্যবসায়ীদের আহ্বান এবং পুলিশকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনি সরঞ্জাম পৌঁছানোর পর থেকে তা প্রতিটি কেন্দ্রের জন্য আলাদা করা হচ্ছে। সোমবার থেকে এগুলো সিটি করপোরেশনের ৪২৫টি ভোটকেন্দ্রে পাঠানো শুরু হবে। ভোটকেন্দ্রের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা এসব সরঞ্জাম কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে কেন্দ্রে নিয়ে যাবেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, নির্বাচনি সরঞ্জামের মধ্যে নির্বাচন কমিশন সচিবালয় কর্তৃক সরবরাহ করা হয়েছে সিলসহ স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স, ছবিসহ ভোটার তালিকা, অমোচনীয় কালির কলম, রাবারের অফিসিয়াল সিল (কোড বা গোপন চিহ্ন সম্বলিত), রাবারের মার্কিং সিল (ভোটার কর্তৃক ব্যালট পেপার চিহ্নিতের জন্য), গালা, সিলগালা করার জন্য পিতলের সিল (ব্রাশ সিল), স্ট্যাম্প প্যাড, চটের বা গানি ব্যাগ (ভোট কেন্দ্রের নির্বাচনি সরঞ্জাম বহনের জন্য) ও চটের ছোট থলি বা হোসিয়ান ব্যাগ (অফিসিয়াল সিল, মার্কিং সিল, পিতলের সিল, স্ট্যাম্প প্যাড, অমোচনীয় কালির কলম ইত্যাদি ভর্তি করে রিটার্নিং অফিসার বা সহকারী রিটার্নিং অফিসারের নিকট আলাদাভাবে ফেরত প্রদানের জন্য)।

এছাড়া স্থানীয়ভাবে সংগ্রহ করা হয়েছে বল পয়েন্ট কলম, সাদা কাগজ, কার্বন কাগজ, ছুরি, সুঁই (বড় সাইজ), সুতা, মোমবাতি, দেয়াশলাই, আলপিন, গামপট, সুপার গ্লু, লোহা/প্লাস্টিক/বাঁশের পাত এবং প্রিন্ট করা দেয়ালপত্র যাতে প্রবেশ, বাহির, ভোটকক্ষ নম্বর, প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার, পোলিং এজেন্ট ইত্যাদি লেখা থাকবে।

উল্লেখ্য, সোমবার (২৬ জুন) গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী হিসেবে অংশ নিচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম (নৌকা), বিএনপি মনোনীত মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকার (ধানের শীষ), ইসলামী ঐক্য জোটের ফজলুর রহমান (মিনার), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নাসির উদ্দিন (হাতপাখা), বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের জালাল উদ্দিন (মোমবাতি), বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির কাজী রুহুল আমিন (কাস্তে) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ফরিদ আহমদ (টেবিল ঘড়ি)।

মন্তব্য

মন্তব্য