পুলিশ দিয়ে আমরা এলাকায় কোনও কাজ করাই না: গাজীপুরে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম

সাইফুল আলম সুমন, নিজস্ব প্রতিবেদক//
বিএনপি ও ২০ দলীয় জোট মনোনীত প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকারের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের বিষয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘এলাকায় আমরা পুলিশ দিয়ে কোনও কাজ করাই না। আমরা নিজেরা এখানে দিন রাত পরিশ্রম করছি। রোদ বৃষ্টি উপেক্ষা করে ভোটারের দ্বারে দ্বারে ঘুরছি। অন্য কোনও উদ্দেশ্য থাকলে আমরা দিন রাত মানুষের কাছে দৌড়াতাম না। বিএনপির প্রার্থী ৮৬ ও ৮৮ সালে নির্বাচন করেছিল। উনার আমলের ভোটে অভিজ্ঞতা থেকে তিনি এলাকায় গিয়ে কাউকে পেলেই বিএনপির কেন্দ্রীয় ব্যবস্থাপত্র লিখিত আকারে ও মৌখিকভাবে মিডিয়ার কাছে দিচ্ছেন।’

তিনি বিএনপি প্রার্থীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ‘গাজীপুরের মানুষ ও ভোটারের প্রতি আস্থা রাখুন। বিশ্বাস করুন। ভোটাররা সবাই যেন শান্তিপূর্ণভাবে ও নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারে সে জন্য আমার ও দলের পক্ষ থেকে নেতাকর্মীদের বলে দেওয়া হয়েছে। তারাও যেন স্বাধীনভাবে যেন প্রচারকাজ চালাতে পারে তাও বলে দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন হামলা মামলা আছে সেটা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ব্যাপার। কিন্তু কোনও নিরীহ মানুষ যেন পুলিশি হয়রানির শিকার না হয় সেজন্য আমি পুলিশ বাহিনীকে অনুরোধ করেছি।

তিনি আরও বলেন, আমি গাজীপুরে মডেল নির্বাচন চাই। গাজীপুরের মানুষ শান্তিপ্রিয়। আমরা চাই ভোটাররা যাতে উৎসবমুখর পরিবেশের মাধ্যমে ভোট দিতে পারে। আঞ্চলিকভাবে যারা গাজীপুরের নাগরিক আমি তাদের সঙ্গে নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। তারা আমাকে তাদের সন্তান ও কর্মঠ হিসেবে আমাকে বেছে নিয়েছে। তারা বুঝতে পেরেছে আমি কাজ করতে পারব। আমি একজন কর্মচারী হিসেবে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব নিয়ে কাজ করতে চাই। ’

খুলনার মতো পুলিশি সহায়তায় নির্বাচন নেওয়া হলে বিএনপি তা প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছেন। এই ঘাত প্রতিঘাত ও পাল্টা অভিযোগের মধ্য দিয়ে ভোটারদের মধ্যে কোনো আতঙ্ক তৈরি হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নে জবাবে জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘এখানে কোনও অন্যায়কারী ছাড় পাবে না। এখানে পুলিশ তাদের সহযোগিতা করবে। যাতে অনিয়ম, অত্যাচার ও হিংসাত্মক কোনও ঘটনা না ঘটে। নৌকার স্বার্থে গাজীপুরবাসী ঐক্যবদ্ধ। এ কারণেই হয়তো বিএনপির প্রার্থী নানা সময় নানা কথা বলার চেষ্টা করছেন।’

জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘আমি নিজে বিএনপি প্রার্থীর কাছে ভোট চেয়েছি। আমাকে ভোট দিলে আপনাদের জন্য নগরবাসীর জন্য একটা ভালো শহর ও হাসপাতাল উপহার দিতে চাই। আমি সব দলের জন্য এটা করতে চাই। এর আগের নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থীকে ভোট দেওয়ায় মানুষ এখন স্বস্তিতে নেই। এই অস্বস্তি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্যই আমাকে এবং নৌকাকে ভোট দেওয়ার আকুল আবেদন করেছি। আপনাদেরকে একটি পরিচ্ছন্ন নগর দিতে চাই।’

মন্তব্য

মন্তব্য