গলাচিপা থানায় মাদক বিরোধী অভিযানে গত এক মাসে ২৭ জন আটক ও ১৫ টি মামলা দায়ের

মো: নাসির উদ্দিন, ক্রাইম রিপোটার, পটুয়াখালী :- পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলায় ১২ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভায় সরকারের মাদক বিরোধী অভিযানে ২৭ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক এবং ১৫ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মাদক ব্যবসায়ী মূল গড ফাদার গাজা সম্রাট ও জ্বীনের বাদশা র‌্যাব-পুলিশের অভিযানের খবর পেয়েই এলাকা ছাড়া হয়েছে। গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব জাহিদ হোসেন সংবাদ প্রতিনিধিকে জানান, গাজা, ইয়াবা ও মাদক বিক্রেতা প্রতিরোধে মাদক বিরোধী অভিযানে গলাচিপা থানা পুলিশ ও র‌্যাব-পটুয়াখালী ৮ প্রতিনিধিদের অভিযানের প্রেক্ষিতে গলাচিপা থানার প্রতিটি ইউনিয়ন, হাট-বাজারে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত ও পাচারকারীদের বিরুদ্ধে গত মে/১৮ মাসের অভিযানে উল্লেখযোগ্য ২৭ জন মাদক অপরাধীকে আটক করতে সক্ষম হয় এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে গলাচিপা থানায় মোট ১৫ টি মামলা রজু করা হয়েছে বলে তিনি জানান। গলাচিপা থানার উল্লেখযোগ্য মাদক অপরাধীদের তালিকা মোতাবেক অপরাধীদের খুঁজে বের করা হবে এবং মাদকের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করা হয়েছে। ২৭ জন মাদক অপরাধীদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে (১) কাইয়ুম (২) ইয়াবা বিক্রেতা বেল্লাল মৃধা (৩) সোহরাব সরদার (৪) মনির তালুকদার ও (৫) রাসেল সহ ২৭ জন বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে। সম্প্রতি গলাচিপা উপজেলার মাদক সম্রাট জ্বীনের বাদশা গাজা মনির কে গ্রেফতারের জন্য র‌্যাব-পুলিশ বহুবার অভিযান পরিচালনা করেছে। এছাড়া মনিরের পিতা রশিদ প্যাদা ও তার স্ত্রী বর্তমানে ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি দিয়ে গাজা বিক্রি করছে বলে জনশ্র“তি রয়েছে। গলাচিপা উপজেলায় মাদক বিরোধী অভিযানে র‌্যাব- পুলিশের অভিযানন্ন সামাজিক সংগঠন ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অভিকে বিভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছে।

মন্তব্য

মন্তব্য