হোস্টেল সুপার ৫০ ছাত্রীকে বিবস্ত্র করলেন

অন্তর্জাতিক ডেস্ক.অনলাইন সংস্করণ:বার্তা সংস্থাটি জানিয়েছে,ভারতের মধ্যপ্রদেশে ড. হারি সিং গৌর বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫০ ছাত্রীকে বিবস্ত্র করার ঘটনা ঘটেছে।ড.হারি সিং গৌর বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি হোস্টেলের টয়লেটের সামনে ব্যবহৃত স্যানিটারি ন্যাপকিন পড়ে থাকার কারণে পঞ্চাশজন ছাত্রীকে বিবস্ত্র করেছেন হোস্টেল সুপার। কোন ছাত্রীর মাসিকের(ঋতুস্রাব) পর তা ব্যবহার করে টয়লেটের বাইরে ন্যাপকিনটি ফেলে গেছে তা খুঁজে বের করতে এ কাজটি করেন তিনি।বিজনেস টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, হোস্টেল সুপার তার কাজ শেষ করে নিজ কক্ষে ফিরে যাওয়া সময় একটি টয়লেটের সামনে ব্যবহৃত ওই ন্যাপকিনটি দেখতে পান। পরে তিনি ওই হোস্টেলে থাকা সকল ছাত্রীকে তার কার্যালয়ে ডাকেন। সেখানে তিনি সবাইকে পরিধেয় কাপড় খুলে নগ্ন হতে বলেন, যাতে কার ‍মাসিক হয়েছে সেটি নিশ্চিত হতে পারেন। কিন্তু ছাত্রীরা অমত পোষণ করলে তিনি জোর করে সকলকে নগ্ন করে পরীক্ষা করেন।বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর অন্যান্য ছাত্রীরা এ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর (ভিসি) আরপি তিওয়ারির কাছে নালিশ করেন। তিনি এ ব্যাপারে ওই হোস্টেল সুপারকে কৈফিয়তনামা দিতে নির্দেশ দেন।
আরপি তিওয়ারি বলেন, ‘এটি ন্যাক্কারজনক। খুবই দুর্ভাগ্যজনক ও নিন্দনীয়। সকল ছাত্রী অামার সন্তানের মতো।। আমি এই ব্যাপারে তাদের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। আমি কথা দিচ্ছি এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যদি হোস্টেল সুপারের এ ব্যাপারে কোনো দোষ থাকে তাহলে অবশ্যই তাকে শাস্তি পেতে হবে। খবর ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমসের।

মন্তব্য

মন্তব্য