শরীয়তপুর সদর ও জাজিরা মাঠে সক্রিয় ১৮ সম্ভাব্য প্রার্থী

শরীয়তপুর সদর ও জাজিরা উপজেলার দুই পৌরসভা এবং ২৩ ইউনিয়ন নিয়ে শরীয়তপুর-১ আসন। বর্তমান ভোটার দুই লাখ ৯৪ হাজার ৪৪২ জন। একাদশ সংসদ নির্বাচন নিয়ে সারা দেশের ন্যায় এ অঞ্চলেও বইছে নির্বাচনী হাওয়া। গ্রামগঞ্জে ও চায়ের দোকানে বিভিন্ন দলের সম্ভাব্য প্রার্থী নিয়ে চলছে নানা আলোচনা। বিগত দিনে এলাকার উন্নয়ন, সাধারণ মানুষের পাশাপাশি থেকে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে সম্ভাব্য প্রার্থীদের যোগাযোগ ও তাদের যোগ্যতা আলোচনায় স্থান পাচ্ছে বেশি। এ পর্যন্ত নির্বাচনী তৎপরতায় মাঠে সক্রিয় ও আলোচনায় রয়েছেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ১৮ মনোনয়নপ্রত্যাশী। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগের ৯, বিএনপির ৪, জাতীয় পার্টির ২, জাসদের ২ ও বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের ১ মনোনয়নপ্রত্যাশী রয়েছেন। অনেকেই মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। তারা নিজ নিজ দলের মনোনয়ন পেতে সব কৌশলই ব্যবহার করছেন। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা পর্যন্ত সম্ভাব্য প্রার্থীদের তালিকা আরও দীর্ঘ হতে পারে। আর প্রার্থী মনোনয়নে বড় দুই দলেই চমক থাকতে পারে বলেও অনেকের ধারণা। আওয়ামী লীগ: আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান সংসদ সদস্য বিএম মোজাম্মেল হক, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু, শরীয়তপুরের পৌরসভার মেয়র ও ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি রফিকুল ইসলাম কোতোয়াল, সাবেক এমপি মাস্টার মজিবুর রহমান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবুল হাসেম তপাদার, জাজিরা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সামসুল হক খান, জাজিরা উপজেলা চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদার, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আব্দুর রব মুন্সী, ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেত্রী নুরজাহান আক্তার সবুজ। তাদের মধ্যে বিএম মোজাম্মেল হকের মনোনয়ন প্রায় নিশ্চিত বলে জানা যায়। তিনি তৃতীয়বারের মতো আওয়ামী লীগের আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। এর আগে ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক। সাংগঠনিক তৎপরতা ও এমপি হিসেবে এলাকার উন্নয়নেও তার ভূমিকা দলীয় হাইকমান্ডের নজর কেড়েছে।

মন্তব্য

মন্তব্য