বাংলাদেশ বেতারে তালিকাভূক্ত গীতিকার হলেন কবি আহমেদ উল্লাহ

 

মোঃ জুয়েল রানা: কুমিল্লা হোমনার তরুন সাহিত্যিক মরমী শিল্পী ও গীতিকার কবি আহমেদ উল্লাহ বাংলাদেশ বেতারে গীতিকার হিসেবে তালিকাভূক্ত হয়েছেন । গত ৭ নভেম্বর ১৭ তারিখের আঞ্চলিক পরিচালক মো. আসাদ উল্লাহ এর স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে কবিকে এ তথ্য জানানো হয়। এ চিঠি পাওয়ার পর কবির বন্ধুমহল, সহপাঠি, শুভাকাংঙ্খি, শুভান্ধায়ীগণ আনন্দ উল্লাস করে মিষ্টি বিতরণ করেছে এবং কবিকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান । এ সময় তারা বাংলাদেশ বেতার কর্তৃপক্ষের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন । এ বিষয়ে কবি আহমেদ উল্লাহ বাংলাদেশ বেতার কর্তৃপক্ষের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে সাংবাদিককে বলেন, আমি খুবই আনন্দিত, আমার লেখা গান বাংলাদেশ বেতারে প্রচার হবে এর চেয়ে বড় পাওয়া আর কি হতে পারে! আমি সকলের নিকট দোয়া কামনা করছি। দোয়া করবেন আমি যেন বৃহৎ পরিসরে দেশের সুনাম অর্জন করতে পারি।এ দিকে কবি আহমেদ উল্লাহ’র এ সাফল্যে হোমনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক মো. আবদুল হক সরকার, সাধারণ সম্পাদক ও সাপ্তাহিক গ্রামবাংলার খবর পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মোঃ জসিম উদ্দিন লিটন ভূইয়া, তিতাস প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন মোল্লা এবং চ্যানেল MKTv’চেয়ারম্যান এমএ কাশেম ভূঁইয়া কবিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, আমাদের পল্লী অঞ্চল থেকে কবি আহমেদ উল্লাহ বাংলাদেশ বেতারে গীতিকার হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আমরা খুব খুশি । আমাদের বিশ্বাস তার প্রতিভা একদিন না একদিন বিকশিত হবেই। কবি আহামেদ উল্লাহ সত্যিকার অর্থে একজন প্রতিভাবান কবি, সাহিত্যিক, মরমি গীতিকার ও কন্ঠ শিল্পী। আমরা তাহার উত্তর উত্তর সাফল্য কামনা করছি।জানা গেছে, কবি আহামেদ উল্লাহ হোমনা উপজেলার জয়পুর গ্রামের মাজহারুল ইসলাম মাস্টার এর ছেলে। সে ছাত্রজীবন থেকে আধ্যাতিক গান ও কবিতা রচনার প্রতি ছিল তার আগ্রহ । তিনি অগ্রনী ব্যাংকে চাকুরীতে যোগদান করেন । চাকুরীর পাশাপশি সে তার লিখনী চালিয়ে ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি সাহিত্য ও কাব্য রচনা করেছেন । এর মধ্যে ভাবের মুসাফির, বঞ্চিত বাসনা, কালিন্দীর তীরে, সাঝের সবিতা, কল্পতরু সবচেয়ে বেশী আলোচিত। এ ছাড়া কলিকাতা (ভারত)থেকে প্রকাশিত তার লিখা ‘মেঘ রাঙ্গামন’ ১৫ নভেম্বর অনুষ্ঠিত কলিকাতার বই মেলায় পাঠকদের নিকট বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে ।

মন্তব্য

মন্তব্য