মোবাইল ফোন খোয়া গেলো শাহরুখ ভক্তের

ডেস্ক রিপোর্ট : ৫২তম জন্মদিনে মান্নতের বাইরে ভক্তদের উদ্দেশে শাহরুখ খানপ্রতি বছর যা হয়, এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের ৫২তম জন্মদিনে জড়ো হয়েছিল হাজারও ভক্ত। মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় তার বাড়ি মান্নতের বাইরে দেখা গেলো জনসমুদ্র! স্বপ্নের তারকা দেখা দেবেন, এই আশায় ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষায় ছিলেন সাধারণ মানুষ। তাদের ইচ্ছাপূরণ হয়েছে ঠিকই, কিন্তু হারাতে হয়েছে জিনিসপত্র!
বান্দ্রা পুলিশ জানিয়েছে, মান্নতের বাইরে অপেক্ষারত ১৩ জন মোবাইল ফোন চুরি হওয়ার অভিযোগ দিয়েছে। শাহরুখকে শুভকামনা জানাতে ছত্তিশগড় থেকে এসেছিলেন অঙ্কিত সাহু। ২৬ বছর বয়সী এই তরুণের মোবাইল ফোন নিয়ে গেছে পকেটমার।

ভক্তদের মোবাইল ফোন হারানোর খবরে সোরগোল পড়ে গেছে ভারতীয় গণমাধ্যমে। শাহরুখের জন্মদিনে অসংখ্য মানুষ সমবেত হবে, এটা জানা ছিল। তাই নিরাপত্তা জোরদার ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশের প্রস্তুতিও ছিল। কিন্তু পকেটমারের শিকার হবেন কে জানতো!

মান্নতের সামনে শাহরুখ খানের ভক্তরাএদিকে পরিবার, বন্ধু ও বলিউড তারকাদের নিয়ে ধুমধাম আয়োজনে এবারের জন্মদিন উদযাপন করতে শাহরুখ গিয়েছিলেন আলিবাগের একটি বাংলোতে। তারকাদের মধ্যে ছিলেন করণ জোহর, দীপিকা পাড়ুকোন, আলিয়া ভাট, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, ফারাহ খান কুন্দর, শ্বেতা বচ্চন, সুজান খানসহ অনেকে।

৫২তম জন্মদিনে মান্নতের বাইরে ভক্তদের উদ্দেশে শাহরুখ খানবৃহস্পতিবার বিকালে মুম্বাইয়ে ফেরেন শাহরুখ। এসেই গণমাধ্যমের সামনে জন্মদিনের কেক কাটেন তিনি। এরপর ভক্তদের সামনে যান ছোট ছেলে আবরামকে নিয়ে। জন্মদিনে বাড়ির সামনে জনসমুদ্র ও তাদের ভালোবাসা দেখে আপ্লুত শাহরুখ। তার মন্তব্য— ‘আমার জীবনটা ধন্য!’

শাহরুখ খানশৈশবে দিল্লির নিউ রাজিন্দর নগরের এফ ব্লকে একটি বাংলোতে থাকতেন শাহরুখ। তার কৈশোর কেটেছে একই শহরের গৌতম নগরে। পড়াশোনা করেছেন দিল্লির হংসরাজ কলেজে। রূপালি পর্দায় ক্যারিয়ার গড়ার স্বপ্ন নিয়ে ১৯৯২ সালে মুম্বাইয়ে চলে আসেন তিনি।

মন্তব্য

মন্তব্য